জেলার খবর

বাকেরগঞ্জে এসিল্যান্ডের নাম বিক্রি করে টাকা ভাগাভাগি প্রতারক শাহ আলমের

  প্রতিনিধি ২১ সেপ্টেম্বর ২০২২ , ৯:০৭:৫৯ প্রিন্ট সংস্করণ

স্টাফ রিপোর্টার- বাকেরগঞ্জের চরামদ্দিতে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অপরাধে সাজার ভয় দেখিয়ে এসিল্যান্ডের নামে আশি হাজার টাকা আত্মসাৎ এর গুঞ্জনে সৃষ্টি হয়েছে অচাঞ্চল্যের। জানা যায়,বাকেরগঞ্জের চরামদ্দির ৩ নম্বর ওয়ার্ডের খালে গতকাল দুপুরে অবৈধভাবে উত্তোলন করা বালুসহ দুটি মাঝারী জাহাজ নজরে পড়ে স্থানীয়দের। এসময় স্থানীয় এক ব্যক্তির মাধ্যমে সংবাদ চলে যায় কথিত সাংবাদিক ও বরিশাল ক্রাইম পত্রিকার মালিক বনে যাওয়া শাহআলম এর কাছে।ঝড়ের গতিতে একাধিকবার প্রতারণা,চাঁদাবাজি ঘটনার মার খাওয়া টাউট শাহআলম চলে যান স্পটে। এরপর অবৈধভাবে উত্তোলিত বালু বিক্রি করতে নোঙ্গর করা জাহাজ ‘ইয়ারউদ্দিন খলিফা আনলোড ড্রেজার ‘ এর মালিক আফজাল ও মোজাম্মেলের লোকজনের রোষানলে পড়ে লাঞ্ছিত হয় টাউট শাহআলম। সাংবাদিক লাঞ্চিত করার অভিযোগে শাহআলম ওয়ার্ডের মেম্বর গিয়াস উদ্দিনকে ফোন দিয়ে ঘটনাস্থলে আনার পর আরেকদফা লাঞ্চিত করা হয় শাহআলমকে।এবং সে সময় জাহাজের ৩ জন ব্যক্তিকে ছাড়িয়ে নেন মেম্বর। এ ঘটনা জানাজানি হলে বাকেরগঞ্জের এসিল্যান্ড (সহকারী কমিশনার ভূমি) আবুজর মোহাম্মদ এর নির্দেশে তহসিলদার হাবিবুর রহমান এসে অবৈধ জাহাজ দুটির জিম্মা নেন।এ ঘটনায় বুধবার সকালে বাকেরগঞ্জের সহকারী কমিশনার ভূমির কার্যালয়ে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অপরাধের জন্য জরিমানা করা হয় ত্রিশ হাজার টাকা। এই বিচারকার্যে স্বাভাবিকভাবে দুই লক্ষ টাকা জরিমানার বিধান রয়েছে ভয় দেখিয়ে শাহআলম অপরাধীদের কাছ থেকে ১ লক্ষ টাকার চুক্তি করে গতকাল রাতেই।দফায় দফায় আলোচনার পর আশি হাজার টাকায় রাজি হলে, অপরাধীদের সাথে সকালেই মোবাইল কোর্টে সেচ্ছায় হাজির হয়েছে শাহআলম। আর ঘটনা নিছক ভুল বোঝাবুঝি বলে চালিয়ে দিতে চায় শাহআলম ও বালু ডাকাতরা। কিন্তু এসিল্যান্ড ভোক্তা অধিকার আইনের ধারায় জরিমানা করেন।এরপর এসিল্যান্ডের কার্যালয়ের নিচতলাতেই খোদ ‘এসিল্যান্ডকে ব্যক্তিগতভাবে দিতে হবে’ ভূয়া সাংবাদিকদের সাথে মিলে ৮০ হাজার টাকা ভাগাভাগি করে শাহআলম চৌকিদার। টাকা ভাগাভাগির ঘটনা জানাজানি হওয়ার পর উপজেলা জুড়ে ব্যপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

Print Friendly, PDF & Email

আরও খবর

Sponsered content