চট্টগ্রাম

আমরা দিবো ফুল, ভালোবাসা, আপনারা দিন একটি দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ

  প্রতিনিধি ১৮ জুলাই ২০২২ , ১:৪৮:৪৩ প্রিন্ট সংস্করণ

আমরা দিবো ফুল, ভালোবাসা, আপনারা দিন একটি দুর্নীতিমুক্ত বাংলাদেশ’ সহ বিভিন্ন লেখা সংবলিত প্ল্যাকার্ড নিয়ে চট্টগ্রাম রেলস্টেশনে অবস্থান নিয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের ৪ শিক্ষার্থী। রেলওয়ের অব্যবস্থাপনা পরিবর্তনের দাবিতে কমলাপুর স্টেশনে ১০ দিন ধরে অবস্থান কর্মসূচি পালন করা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র মহিউদ্দিন রনির সঙ্গে সংহতি জানিয়ে তারা এই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করছেন। রোববার সকাল থেকে এই শিক্ষার্থীরা চট্টগ্রাম রেলস্টেশনে অবস্থান নেন। প্ল্যাকার্ড নিয়ে রেলওয়ে স্টেশনে অবস্থান নেয়া এই শিক্ষার্থীরা হলেন- চবি’র যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের ছাত্র কাজী আশিকুর রহমান, মোহাম্মদ মাহিন রুবেল, তৃতীয় বর্ষের ছাত্র মাহবুব হাসান ও মোহাম্মদ মাসুদ। জানা যায়, এসময় শিক্ষার্থীরা তাদের ৬টি দাবি পেশ করেন। দাবিগুলো হলো-টিকিট কেনার ক্ষেত্রে সহজ ডটকম কর্তৃক যাত্রী হয়রানি অবিলম্বে বন্ধ করা ও হয়রানির ঘটনায় তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া, যথোপযুক্ত পদক্ষেপের মাধ্যমে টিকিট কালোবাজারি প্রতিরোধ, অনলাইনে কোটায় টিকিট ব্লক করা বা বুক করা বন্ধ করা ও অনলাইন-অফলাইনে টিকিট কেনার ক্ষেত্রে সর্বসাধারণের সমান সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করা, যাত্রী চাহিদার সঙ্গে সংগতি রেখে ট্রেনের সংখ্যা বৃদ্ধিসহ রেলের অবকাঠামো উন্নয়নে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নেয়া, ট্রেনের টিকিট পরীক্ষক-তত্ত্বাবধায়কসহ অন্য দায়িত্বশীলদের কর্মকাণ্ড সার্বক্ষণিক নজরদারি ও শক্তিশালী তথ্য সরবরাহ ব্যবস্থা গড়ে তোলার মাধ্যমে রেলসেবার মান বাড়ানো এবং ট্রেনে ন্যায্যদামে খাবার বিক্রি, বিনামূল্যে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ ও স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করা। রেলস্টেশনে অবস্থান নেয়া চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের যোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের শিক্ষার্থী মোহাম্মদ মাহিন বলেন, রেলওয়ের অব্যবস্থাপনা পরিবর্তন না হওয়া পর্যন্ত আমাদের আন্দোলন চলবে। সকালে রেলওয়ের কর্মকর্তারা আমাদের কর্মসূচিতে সংহতি প্রকাশ করে শান্তিপূর্ণভাবে আন্দোলন করতে বলেছে। আমরা সুস্পষ্ট নির্দেশনা না পেলে আন্দোলন চালিয়ে যাবো। এ বিষয়ে চট্টগ্রাম রেলওয়ের স্টেশন ম্যানেজার রতন কুমার চৌধুরী বলেন, কয়েকজন যুবককে রেলস্টেশনে অবস্থান নিতে দেখেছি।

এর চেয়ে বেশি কিছু বলতে পারছি না। উল্লেখ্য, রেলের টিকিট কিনতে গিয়ে কমলাপুর স্টেশনে হয়রানির শিকার হয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন। এই ঘটনার প্রতিবাদে ঈদুল আজহার আগে ৭ই জুলাই থেকে টানা ১০ দিন কমলাপুর রেলস্টেশনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে যাচ্ছেন তিনি।

Print Friendly, PDF & Email