২রা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার

অ্যাকুয়ারিয়ামের ছোট্ট গোল্ডফিশ যখন মাথাব্যথার কারণ

আপডেট: জুলাই ১৩, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

আজ মঙ্গলবার বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সম্প্রতি মিনেসোটার বার্নসভিল শহরের কেলার হ্রদে জরিপ চালানোর সময় অনেক বড় আকারের কয়েকটি গোল্ডফিশ পাওয়া গেছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করা হয়েছে সেসব মাছের ছবি। কর্তৃপক্ষ বলছে, অ্যাকুয়ারিয়ামের ছোট্ট গোল্ডফিশ হ্রদের মুক্ত পরিবেশে এসে বিশাল আকার ধারণ করেছে।

তবে এতে খুশি হওয়ার কারণ নেই। কেননা, আকার বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে এই মাছ হ্রদের তলদেশের গুল্ম তুলে ফেলছে। পলি ও পানির গুণাগুণ নষ্ট করছে। সর্বোপরি হ্রদের বাস্তুতন্ত্রের জন্য হুমকি তৈরি করেছে।

আর এই সমস্যার মূলে রয়েছেন শৌখিন মৎস্যপ্রেমীরা। অ্যাকুয়ারিয়ামে গোল্ডফিশের সংখ্যা বেড়ে গেলে অনেকেই বাড়তি মাছ প্রাকৃতিক জলাধারে ছেড়ে দেন। এভাবেই অ্যাকুয়ারিয়ামের ছোট্ট গোল্ডফিশ পুকুর কিংবা হ্রদের মুক্ত পানিতে চলে যায়। সেখানে অন্য প্রজাতির মাছ খেয়ে ফুলেফেঁপে ওঠে।

এই কারণে শৌখিন মৎস্যপ্রেমীদের উদ্দেশে টুইটারে স্থানীয় কর্তৃপক্ষের আবেদন, বাড়ির অ্যাকুয়ারিয়ামে গোল্ডফিশের সংখ্যা বেড়ে গেলে বাড়তি মাছ দয়া করে পুকুর কিংবা হ্রদের পানিতে ফেলবেন না। প্রয়োজনে এসব মাছের আলাদা আবাসের ব্যবস্থা করুন।

মিনেসোটায় গোল্ডফিশকে রাক্ষুসে মাছ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। প্রাকৃতিক বাস্তুতন্ত্রে যা অন্যান্য মাছের বেঁচে থাকার জন্য হুমকি। তাই এই অঙ্গরাজ্যের প্রাকৃতিক জলাধারে গোল্ডফিশ ছাড়া বেআইনি। এরপরও অনেক শৌখিন মৎস্যপ্রেমী অ্যাকুয়ারিয়ামের বাড়তি গোল্ডফিশ হ্রদের পানিতে ছাড়েন।

অ্যাকুয়ারিয়ামের বদ্ধ পরিবেশে একটি গোল্ডফিশ ৫ দশমিক ১ সেন্টিমিটার বড় হতে পারে। তবে মুক্ত জলাধারে এর আকার কয়েক গুণ বেড়ে যায়। দ্রুত বংশবিস্তার করতে পারে। ফলে সহজেই জলাধার থেকে অন্য মাছ খেয়ে ফেলে বিশালাকারের এসব গোল্ডফিশ।

এর আগে পার্শ্ববর্তী কারভেন কাউন্টিও একই ধরনের সমস্যায় পড়েছিল। গত বছরের অক্টোবরে সেখানকার খাঁড়ি থেকে ৫০ হাজার গোল্ডফিশ সরিয়ে ফেলা হয়েছিল। তবে এই অপসারণ প্রক্রিয়া পরিকল্পনা করা থেকে বাস্তবায়ন করতে প্রায় তিন বছর সময় লেগেছিল।

গোল্ডফিশ নিয়ে এর আগে বিপত্তিতে পড়েছিল জার্মানিও। ২০১৭ সালে মিউনিখ সিটি কাউন্সিল জানায়, শহরের পুকুর ও হ্রদগুলোয় গোল্ডফিশের ঝাঁক অন্যান্য মাছের জন্য হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। এ সময় কাউকে পোষা গোল্ডফিশ প্রাকৃতিক জলাধারে ছাড়ার সময় ধরা পড়লে জরিমানা করা হবে বলেও সতর্ক করে দেয় শহর কর্তৃপক্ষ।

এর আগে ২০১০ সালে যুক্তরাজ্যের দক্ষিণ–পশ্চিমাঞ্চলীয় ডরসেটের এক কিশোর প্রাকৃতিক জলাধার থেকে বিশাল আকারের একটি গোল্ডফিশ ধরেছিল। ওই মাছের ওজন ছিল ২ কেজির বেশি।

Print Friendly, PDF & Email
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল খবর ২৪.কমে প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।