১৮ই এপ্রিল, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার

তজুমদ্দিনে প্রানী সম্পদ কর্মকর্তার নারী কেলেঙ্কারি ঘটনায় তোলপাড়

আপডেট: মার্চ ৩০, ২০২১

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

 

স্টাফ রিপোর্টার: ভোলার তজুমদ্দিন উপজেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা পলাশ চন্দ্র সরকারের মুসলমান নারী কর্মি সাথে পরকিয়ার ঘটনায় উপজেলা ব্যাপী তোলপাড় চলছে । জনরোষের ভয়ে পালিয়ে গেছে ওই কর্মকর্তা। এঘটনায় সংশ্লিষ্ট জেলা কর্মকর্তা ও সাংবাদিদের কাছে প্রতিকার ছেয়েছেন ওই কর্মকর্তার স্ত্রী।

 


সুত্রমতে জানা গেছে, প্রানী সম্পদ দপ্তরের কমিউনিটি এসটেনশন ফর লাইভস্টক(সিল) এর ইউনিয়ন মুসলমান নারী কর্মি সাথে পরকিয়ায় জড়িয়ে পড়েন পলাশ চন্দ্র সরকার।
তিনি ২৬ মার্চ-সন্ধ্যায় বেতুয়া টু ঢাকা সার্ভিসে ওই নারী কর্মিকে নিয়ে ঢাকায় যায়। এই নিয়ে পলাশ সরকারের স্ত্রী এবং ওই নারী কর্মির স্বামী বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়লে ঘটনা ফাঁস। পরে ওই নারীর স্বজনরা পলাশ সরকারকে খোঁজাখুঁজি করলে তিনি পালিয়ে যান। ওই নারীর স্বামী মোবাইলে জানান, আমি ঢাকায় থাকি, এই ঘটনা শুনে বাড়ী এসেছি। পলাশ সরকারের স্ত্রী মোবাইলে আমার সাথে খারাপ ব্যবহার করেছে।

এ বিষয়ে জানতে পলাশ সরকারের ব্যবহৃত ০১৭৩১৬৭৯৩৬৭ মোবাইল নাম্বারে বিকালে বার বার ফোন দিলেও বন্ধ পাওয়া যায়।
জেলা প্রানী সম্পদ কর্মকর্তা ইন্দ্রজিৎ মন্ডল জানান, তজুমদ্দিন উপজেলা প্রানী সম্পদ দপ্তরের একটি নারী ঘটিত ব্যাপার আমাকে অবহিত করা হয়েছে। পলাশ সরকার মোবাইল ফোনে দুই দিনের ছুটি চেয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল খবর ২৪ প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।