২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং, শনিবার

কলাপাড়ায় ঠিকাদার শাহিনকে বেকায়দায় ফেলতে মরিয়া প্রতিপক্ষ

আপডেট: সেপ্টেম্বর ২, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদক :  পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় ঠিকাদারকে বেকায়দায় ফেলতে মিথ্যা তথ্য দিয়ে সংবাদ প্রকাশ ও গভীর রাতে পুলিশ দিয়ে হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতিষ্ঠিত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স মিফর্তা ট্রেডার্সের সত্ত্বাধিকারী শাহিন মৃধাকে বেকায়দায় ফেলে নিজে সকল কাজ হাতিয়ে নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে প্রভাবশালী এক আওয়ামী লীগ নেতার পিএস পরিচয় দানকারি প্রতিপক্ষ ঠিকাদার মেসার্স লাকি এন্টার প্রাইজের সত্ত্বাধিকারী মোঃ শামীমুজ্জামান কাসেম।

এ নিয়ে হয়রানি বন্ধ করতে সকলকে সতর্ক হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন শাহিন মৃধা।

ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান মেসার্স মিফর্তা ট্রেডার্সের সত্ত্বাধিকারী শাহিন মৃধা অভিযোগ করে বলেন, দীর্ঘদিন যাবৎ সুনামের সাথে ঠিকাদারী ব্যবসার করে আসছি। চাইনিজদের থেকে কাজ নেয়ার জন্য তার প্রতিদ্বন্দ্বি ছিলেন আরো কয়েকজন ঠিকাদার। যথাযথ পন্থা অবলম্বন করে কম মূল্যে তিনি ওইসব কাজ করার অনুমতি পান। এতে প্রতিদ্বন্দ্বী ঠিকাদার কাজ না পেয়ে তাকে বিভিন্নভাবে হয়রাণি করছেন। এমনকি থানা পুলিশকে ম্যানেজ করে গভীর রাতে আমার বাড়িতে হানা দিয়ে ছোট ভাইসহ পরিবারের লোক ভয়ভীতি দেখায়। এবং বসতঘড়ের দরজা জানালা ভাঙচুর করেছে পুলিশের সাথে থাকা প্রতিপক্ষের লোকজন। এতে আমার পরিবারের লোকজন আতঙ্কে রয়েছে।’

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম সমাজের দর্পনের এক সাংবাদিক প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরসহ সামাজিকভাবে তাকে বিভিন্নভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে নানা রকম গুজব ছড়াচ্ছে বলেও দাবি করেন ঠিকাদার শাহিন মৃধা।

তিনি বলেন, ‘ গভীর রাতে আমার বাড়িতে পুলিশ নিয়ে গিয়ে হয়রাণি ও ভাঙচুরের বিষয়ে পটুয়াখালী পুলিশ সুপারের কাছে একটি অভিযোগ দিয়েছি।’

শাহিন মৃধা ও তার পরিবারের সদস্যদের হয়রাণি বন্ধে প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল খবর ২৪ প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।