২৩শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার

শিরোনাম
দ্রুতগামীযান ব্যবহার করে দ্রুততম সময়ে জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছাতে হবে – বিএমপি কমিশনার বেতাগী সাইন্স ক্লাবে পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র ও কাউন্সিলরদের শুভেচ্ছা স্মারক প্রদান বরিশালের আঞ্চলিক সমবায় ইনষ্টিটিউটের অধ‍্যক্ষ’র বিরুদ্ধে অনিয়মের অভিযোগ বাকেরগঞ্জ পৌর নির্বাচনী জয় পরাজয়কে কেন্দ্র করে আ.লীগের নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলার ঘটনায় মামলা দায়ের : আসামিরা ধরাছোঁয়ার বাইরে ৫৮ বছরেও দাড়াতে পারেনি বরিশাল বিসিক শিল্প নগরী বরিশালে অনুষ্ঠিত হলো বরিশাল বিভাগীয় উদ্যোক্তা সম্মেলন ২০২০ সাংবাদিক নোমানী’র মুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবে সামনে বসকোর মানববন্ধন বরিশালে বিপুল পরিমান গাঁজাসহ দম্পত্তি আটক বরিশালে বিরামহীন বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত জনজীবন,নগরে জলাবদ্ধতা

বরিশালে নারী ল্যাবকর্মীকে কু প্রস্তাব : রাজি না হওয়ায় নির্যাতন : হাসপাতালে ভর্তি

আপডেট: জুন ১৮, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

স্টাফ রিপোর্টার : বরিশাল বান্দ রোডস্থ মেডিএইড ডিজিটাল ডায়াগনস্টিক এন্ড সিটি স্ক্যান ল্যাবের মার্কেটিং অফিসার আঁখি আক্তারকে কু প্রস্তাব ও নির্যাতন। শেবাচিম হাসপাতালে ভর্তি। কোতয়ালী মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের। ঘটনাটি ১৮ জুন বেলা দুটায় ঘটে শেবাচিম হাসপাতালের জরুরী বিভাগের বাহিরে।
থানায় লিখিত অভিযোগ ও শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ সুত্র থেকে জানা গেছে, বরিশাল সিটি সেন্টারের মার্কেটিং অফিসার ও জাগুয়া ইউনিয়নের পাঁচগাও গ্রামের আমজেদ আলীর পুত্র মাহমুদ হোসেন প্রায়ই বিভিন্ন নারীকে কু প্রস্তাব দিত। এছাড়া শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের রোগীদের নারী স্বজনদের উত্যক্ত করতো। ১৮ জুন বেলা দুটার দিকে আঁখিকে মাহমুদ কু প্রস্তাব দেয়। কু প্রস্তাবে রাজি না হলে অশ্লীল কথা বলে। আঁখি প্রতিবাদ করলে মাহমুদ মারধর করে। এতে গুরুতর অসুস্থ্য হয়ে পরে আঁখি। স্থানীয় লোকজন আখিকে উদ্ধার করে শেবাচিম হাসপাতালের সার্জারি ওয়ার্ডে ভর্তি করে। স্থানীয় লোকজন জানিয়েছে মাহমুদ সিটি সেন্টারে কর্মের আড়ালে রোগীর দালালী,মাদক বিক্রিসহ বিভিন্ন অপকর্ম করে আসছে। মাহমুদ একজন বাজে টাইপের লোক উল্লেখ করে হাসপাতালের স্টাফরা জানায় প্রায়ই বিভিন্ন নারীদের সাথে বিভিন্ন ঘটনা ঘটে। নারীদেরকে কু প্রস্তাব দেয়ায় ইতিপুর্বে একাধিক নারী জুতাপেটাসহ লাঞ্চিত করেছে মাহমুদকে। সম্প্রতি শেবাচিম হাসপাতালের ফিমেল সার্জারি ওয়ার্ডে এক রোগীর কাছে মাহমুদ ডাক্তার পরিচয় দিয়ে শরিরের স্পর্শ স্থানে হাত দেয়। রোগীর স্বজনদের সন্দেহ হলে তারা চ্যালঞ্জ করলে দৌড় দেয়ার সময় হাতেনাতে মাহমুদকে আটক করে গনধোলাই দেয়া হয়। এ ঘটনার পরে হাসপাতালে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয় মাহমুদকে। নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে হাসপাতালে একের পর এক অপকর্ম করেই যাচ্ছে মাহমুদ।
দিনোর পর দিন মাহমুদ বেপরোয়া হয়ে ওঠেছে।
এ ছাড়া রোগীদের বিভিন্ন প্রলোবন দিয়ে অর্থ-কড়ি হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ রয়েছে মাহমুদোর বিরুদ্ধে।

আঁখিকে মারধরের ঘটনায় কোতয়ালী মডেল থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়ে।
আঁখির ওপর হামলার ঘটনায় স্থানীয় লোকজন মাহমুদকে গ্রেপ্তারের দাবী জানিয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল খবর ২৪ প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।