৫ই জুলাই, ২০২০ ইং, সোমবার

ঈদের দিন কীর্তনখোলায় ভেসে উঠল নিখোঁজ শিশুর অর্ধ গলিত মৃতদেহ

আপডেট: মে ২৫, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
বরিশালের শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত সেতু সংলগ্ন কীর্তনখোলা নদীতে গোসল করতে গিয়ে নিখোঁজ শিশু শিক্ষার্থী নিপু আক্তার (১০) এর অর্ধ গলিত মৃতদেহ ভেসে উঠেছে।সোমবার (২৫ মে) ঈদের দিন সকালে ঘটনাস্থলের অদূরে দপদপিয়ার সাবেক ফেরিঘাট সংলগ্ন এলাকায় তার মৃতদেহ ভাসতে দেখে পরিবার ও থানা পুলিশকে খবর দেয় স্থানীয়রা।মৃতদেহ উদ্ধারের পর থেকেই ওই পরিবারটিতে ঈদ আনন্দের পরিবর্তে বইছে শোকের মাতম। সন্তান হারা মায়ের আর্তনাদে ভারি হয়ে উঠেছে আকাশ।সলিল সমাধি ঘটা শিশু নিপু নগরীর রূপাতলী ২৪ নম্বর ওয়ার্ডস্থ মোল্লাবাড়ী সড়কের বাসিন্দা সৌদি প্রবাসী নিজাম হাওলাদারের মেয়ে এবং দক্ষিণ রূপাতলী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী।তথ্য নিশ্চিত করে নিহত শিশুর মামা শহিদুল সিকদার জানান, ‘গত ২৩ মে বাড়ীর পার্শ্ববর্তী কীর্তনখোলা নদীতে গোসল করতে নেমে ডুব দেয় নিপু। এর পর আর উঠে আসেনি সে।পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা দু’দিন তার সন্ধ্যানে কীর্তনখোলা নদীর ঘটনাস্থলে তল্লাশী চালিয়ে মৃতদেহ উদ্ধারে ব্যর্থ হয়। তবে ঘটনার তিন দিনের মাথায় আজ সোমবার ঈদের দিন সকাল সাড়ে ৭টার দিকে তার মৃতদেহ ভেসে ওঠে।তিনি বলেন, ‘ঘটনাস্থল থেকে অনেকটা দূরে দপদপিয়ার সাবেক ফেরিঘাট কাছে খাঁ বাড়ির নদীর ঘাটে নিপুর মৃতদেহ ভাসতে দেখেন স্থানীয়রা। তাদের মাধ্যমে খবর পেয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করা হয়েছে। পরে পুলিশের অনুমতি সাপেক্ষে মৃতদেহ দাফন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শহিদুল সিকদার।

Print Friendly, PDF & Email
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল খবর ২৪ প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।