২রা জুন, ২০২০ ইং, মঙ্গলবার

ঘুর্ণিঝড় আম্ফান ভোলার নিম্মা অঞ্চল প্লাবিত

আপডেট: মে ২০, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

মহিব্বুল্লাহ, ভোলা থেকে : ভোলায় আশ্রয় কেন্দ্রে অবস্থান নিয়েছে ৩লাখ ১৮হাজার মানুষ। জেলার ২১টি ঝুঁকিপুর্ন দ্বীপ চর হতে তাদেরকে নিরাপদে আনা হয়েছে। এছাড়াও প্রবল জোয়ারের কারনে প্লাবিত হয়েছে বঙ্গের চর, ঢালচর,পাতিলা,কুকরিমুকরি চর সহ বেশ কিছু নিচু এরিয়া। পানি বন্দি হয়ে পরেছে ৫হাজারের বেশি মানুষ।
এদিকে, ১ লাখ ৩৬ হাজার গবাধি পশুকেও নিরাপদে আনা হয়েছে। বুধবার (২০শে মে) সকাল থেকে পুরো জেলায় ঝড়ো বাতাস ও বৃষ্টিপাত হচ্ছে। জেলায় ৮ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। আর, সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রতিটি আশ্রয়কেন্দ্রে গড়ে ২০০ জন করে রাখা হয়েছে। সেখানে আবস্থারতদের জন্য খাদ্য সামগ্রী দেয়া হয়েছে। এছাড়াও বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন শিশু, গর্ভবতী নারী ও বয়স্কদের জন্য আলাদা টিমের সদস্যরা সহযোগিতা করছে। ঝুঁকিপূর্ণ চরে বাসিন্দাদের আনার কাজ চলমান রয়েছে। উপকূলীয় এলাকায় মাইকিং করছে সিপিপি ও রেডক্রিসেন্টের কর্মীরা। নিরাপদে চলে এসেছে মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলার।

অন্যদিকে আম্ফান মোকাবিলায় কাজ করছে সিপিপির ১০হাজার ২০০জন সেচ্ছাসেবী ও ৭৯টি মেডিকেল টিম।জেলা কোস্ট গার্ড ও পুলিশের পক্ষ থেকে বিশেষ ভাবে সহযোগিতা করা হচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল খবর ২৪ প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।