২৯শে ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ইং, শনিবার

রাঙ্গাবালীতে সন্তানের বিচার না পেয়ে আদালতে মায়ের মামলা

আপডেট: ফেব্রুয়ারি ৪, ২০২০

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি ঃ
পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার বড়বাইশদিয়া ইউনিয়নের মৌডুবী গ্রামের মনির হাওলাদারের স্ত্রী মোসাঃ কল্পনা আক্তার কলি ছেলে রাহাত হাওলাদার (২০) মর্মান্তিক মৃত্যু বিচার না পেয়ে গলাচিপা সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১১জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।

মামলা নং-১৫৩/১৯। আদালতের বিচারক মামলাটি আমলে নিয়ে রাঙ্গাবালী থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কে ইউডি মামলার সাথে সংযুক্ত করিয়া তদন্ত দিবেন। আসামীরা হলেন মো ঃ সাঈদ (২২), ইমাম হোসেন(৩০), মোসাঃ লিমা (১৯), ফেরদাউস (৪০), তাওহিদ (২১), পাবেল (২৪), মোঃ সালাউদ্দিন (২৫), রাব্বি হাওলাদার (২১), মাহাতাব (৪৮), শাকিল (২৪), নাজিম (২১), সর্ব সাং- মৌডুবী, বড়বাইশদিয়া।
মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ১৫ জুলাই ২০১৯ খ্রি. সোমবার রাত আনুমানিক ১০ টার দিকে কল্পনা আক্তার কলির দাদার বাড়ীতে লাশ ফেলে রেখে আসামীরা চলে যায়। আসামীরা পরস্পর একই দল ভুক্ত সরদার, লাঠিয়াল, সন্ত্রাসী,মাস্তান ও খুনি প্রকৃতির লোক বটে। স্থানীয় বিচার ব্যবস্থা ও আইন কানুন কিছুই মানে না। গায়ের জোড়ে ধরাকে স্বরা জ্ঞান মনে করে। আসামীরা পারে না এমন কোন কু-কাজ বাকী নাই। এ বিষয়ে রাহাত হাওলাদার এর বাবা মনির হাওলাদার এর কাছে জানতে চাইলে তিনি জানান, আমার ছেলেকে আসামীরা পরিকল্পিত ভাবে মেরেছে।

আমি আদালতের কাছে আমার ছেলের মৃত্যুর বিচার চাই। সন্তান হারা মা কল্পনা আক্তার কলির কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার ছেলেকে যারা মেরে ফেলেছে আমি তাদের বিরুদ্ধে আদালতে বিচার চেয়ে বাদী হয়ে মামলা করেছি।

আসামীরা আমাদেরকে মিথ্যা মামলা ভয়-ভীতি দেখায় বলে জানান।

Print Friendly, PDF & Email
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল খবর ২৪ প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।