১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং, শনিবার

শিরোনাম
পটুয়াখালীতে ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার ‘জয় বাংলা’ জাতীয় স্লোগান হওয়া উচিত ১৬ ডিসেম্বর থেকে : হাইকোর্ট মানবাধিকার সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টিতে গুরুত্বারোপ : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কবিতায় ‘দাগ সাহিত্য পুরস্কার’ পাওয়ায় সমবায় অধিদপ্তরের নিবন্ধক ও মহাপরিচালক কবি আমিনুল ইসলামকে ফ্রেন্ডস ফর লাইফ সমবায় সমিতির পক্ষ থেকে অভিনন্দন পটুয়াখালী জেলার বাউফলের কালাইয়া বাজারে ৫০০ কেজি নিষিদ্ধ পলিথিন ও ১৫০ কেজি নিষিদ্ধ কারেন্ট জালসহ আটক ০১ এসডিজি ১৭ টি লক্ষ মাত্রা বরিশাল মুক্ত দিবস আজ আজ বরিশাল মহানগর আ.লীগের সম্মেলন ফ্রেন্ডস ফর লাইফ সমবায় সমিতির সদস্যদের মাঝে ক্ষুদ্র ঋন বিতরন শুরু

বেতাগীতে  বাড়িতে বসেই বেতন নিচ্ছেন প্রধান শিক্ষক

আপডেট: নভেম্বর ২২, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বেতাগী (বরগুনা) প্রতিনিধি

নিয়মনীতির কোন তোয়াক্কা না করে বরগুনার বেতাগী উপজেলার ফুলতলা নুরুনেছা নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মজিবুর রহমান মাসের পর মাস নানা অজুহাতে স্কুলে না এসেই সরকারি বেতন-ভাতা যথারীতি তুলছেন এমনই অভিযোগ পাওয়া গেছে। চাকরি চলে যাওয়ার ভয়ে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মুখ খুলছেন না তার সহকারী শিক্ষকরা।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, ফ্রেরুয়ারি (২০১৯ ) প্রধান শিক্ষক মজিবুর রহমান সর্বশেষ ওই স্কুলে জান। এর পর থেকে তিনি আর স্কুলে আসেননি। স্কুলে না গিয়েও তার ৪র্থ শ্রেণির কর্মচারি সোহরাব হোসেন ও আব্দুল খালেকের মাধ্যমে শিক্ষক হাজিরা বাড়িতে নিয়ে স্বাক্ষর করছেন। একইভাবে মাসিক বেতন-ভাতাদিতে সরকারি অংশে বাড়িতে বসে স্বাক্ষর করছেন এবং যথারীতি টাকা উত্তোলন করছেন। প্রধান শিক্ষক মজিবুর রহমানের মাসিক বেতন ২৩ হাজার টাকা।

সেই হিসেবে স্কুলে না গিয়েও গত আটমাসে সরকারি ১ লাখ ৮৪ হাজার টাকা উত্তোলন করছেন। অন্যদিকে এবিদ্যালয়ে কর্মরত থেকেও ওই প্রধান শিক্ষক পার্শ্ববর্তী বাকেরগঞ্জ উপজেলার চামটা কৃষ্ণ নগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে একইপদে যোগদানের জন্য পায়তারা চালাচ্ছে।

প্রধান শিক্ষকের এহেনো কর্মকান্ডে ক্ষুব্ধ ¯’ানীয় জনপ্রতিনিধি ও অভিবাভকরাও। বিবিচিনি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক নওয়াব হোসেন নয়ন বলেন, চাকুরী বিধি অনুযায়ী একনাগাদে ১ মাস উল্লেখযোগ্য কারণ ব্যতিরেকে কর্ম¯’লে অনুপস্থিত থাকলে সে বেতন-ভাতাপ্রাপ্য হবেন না। অথচ মাসের পর মাস কি করে অনুপস্থিত থেকে বাড়িতে বসেই বেতন ভোগ করে আসছেন ওই প্রধান শিক্ষক ?

এসব অভিযোগ অস্বীকার করে প্রধান শিক্ষক মজিবুর রহমান বলেন, স্কুলের পরি”ছন্নতা কর্মি নিয়োগ নিয়ে দ্ব›দ্ব চলছে। তাই আমার বিপক্ষে যারা আছেন তারা এটা বানিয়ে বলছেন। তাছাড়া কম্পিউটার বাড়িতে থাকার কারনে অফিসিয়াল কাজ বাড়িতে বসেই করি।

প্রধান শিক্ষকের এ কাজে স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির বিরুদ্ধে সহায়তার অভিযোগ থাকলেও স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি সৈয়দ গোলাম মাসুদ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, প্রধান শিক্ষককে মানবিক কারনে অনেক সূযোগ দিয়েছি। এখন আর সেই সময় নেই। দীর্ঘদিন ধরে অনুপস্থিত থাকায় বিধিমোতাবেক অক্টোবরমাস থেকে তার বেতন বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

এছাড়া প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে প্রধান শিক্ষকের অনিয়মের বিরুদ্ধে স্থানীয়ভাবে ৩ সদস্য বিশিস্ট একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটি সভা করে তার বিরুদ্ধে প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য আমার নিকট লিখিতভাবে সুপারিশ করেছেন।
উপজেলা একাডেমিক সুপার ভাইজার মুহা: মাসুদুর রহমান বলেন, সর্বশেষ এ বছরের ৭ নভেম্বর বিদ্যালয় পরিদর্শনে গিয়েও প্রধান শিক্ষককের হদীস মেলেনি। এর আগেও একাধিকবার তাঁকে না পাওয়ায় উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে শিক্ষক হাজিরা জব্ধ করে নতুন হাজিরা বহি খুলে দেওয়া হয়। এর পরেও কাউকে তোয়াক্কা না করে চলতি বছরের ফ্রেরুয়ারি থেকে দীর্ঘদিন ধরে অধ্যাবধি কর্ম¯’লে অনুপস্থিত রয়েছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: শাহীদুর রহমান বলেন, নতুন যোগদান করায় এ বিষয় অবহিত নয়। তবে বিষয়টি জানার পর খতিয়ে দেখে ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল খবর ২৪ প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।