১৪ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং, শনিবার

শিরোনাম
পটুয়াখালীতে ওয়ারেন্টভূক্ত পলাতক আসামী গ্রেফতার ‘জয় বাংলা’ জাতীয় স্লোগান হওয়া উচিত ১৬ ডিসেম্বর থেকে : হাইকোর্ট মানবাধিকার সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টিতে গুরুত্বারোপ : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কবিতায় ‘দাগ সাহিত্য পুরস্কার’ পাওয়ায় সমবায় অধিদপ্তরের নিবন্ধক ও মহাপরিচালক কবি আমিনুল ইসলামকে ফ্রেন্ডস ফর লাইফ সমবায় সমিতির পক্ষ থেকে অভিনন্দন পটুয়াখালী জেলার বাউফলের কালাইয়া বাজারে ৫০০ কেজি নিষিদ্ধ পলিথিন ও ১৫০ কেজি নিষিদ্ধ কারেন্ট জালসহ আটক ০১ এসডিজি ১৭ টি লক্ষ মাত্রা বরিশাল মুক্ত দিবস আজ আজ বরিশাল মহানগর আ.লীগের সম্মেলন ফ্রেন্ডস ফর লাইফ সমবায় সমিতির সদস্যদের মাঝে ক্ষুদ্র ঋন বিতরন শুরু

খেয়াঘাটের ইজারা না পাওয়ার জেরে মাথায় ও মুখে আলকাতড়া (মেঠো তৈল) মেখে দেয়ার মামলায় সাবেক ইউপি সদস্য জেলহাজতে

আপডেট: নভেম্বর ২১, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার সীমান্তবর্তী গাবুয়া-গাজীপুর খেয়াঘাটের ইজারা না পাওয়ার জেরে বর্তমান ইজারাদার জসিম উদ্দিন আকনের মাথায় ও মুখে আলকাতড়া (মেঠো তৈল) মেখে দিয়েছে সাবেক ইজারাদার ও তার ভাইয়েরা। এ ঘটনায় দায়ের করা মামলায় সাবেক ইউপি সদস্য ও সাবেক ইজারাদার মোঃ আবুল কালাম হাওলাদারকে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন আদালত।মামলা সূত্রে জানাগেছে, আমতলী উপজেলার সীমান্তবর্তী গাজীপুর- গাবুয়া খেয়াঘাটের ইজারাদার মোঃ জসিম আকন গত ১লা নভেম্বর বিকেল ৩টার দিকে গাজীপুর বন্দরের চরপাড়া এলাকার মুদি মনোহরদি ব্যবসায়ী ও ঘাটের সাবেক ইজারাদার মোঃ আবুল কালাম হাওলাদারের দোকানের সামনে দিয়ে হেটে যাচ্ছিল। এ সময় তাকে ডেকে তার মাথা ও মুখে আলকাতড়া (মেঠো তৈল) মেখে দেয় আবুল কালাম হাওলাদার ও তার সাথে থাকা ৭ ভাই। ধারনা করা হচ্ছে এ বছর খেয়াঘাটের ইজারা না পাওয়ার জেরে তারা ৭ ভাই এ ঘটনা ঘটিয়েছে। আবুল কালাম হাওলাদার উপজেলার আঠারোগাছিয়া ইউনিয়নের ৬ নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য। তার বাবা মোঃ ফজলুল হক হাওলাদারকে স্থানীয়রা এমপি বলে ডাকে।এ ঘটনায় খেয়াঘাটের বর্তমান ইজারাদার জসিম আকন আমতলী থানায় মামলা করতে গেলে থানা মামলা নেয়নি। তাই বাধ্যহয়ে গত ২ নভেম্বর জসিম আকন বাদী হয়ে গলাচিপা উপজেলা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে মামলা দায়ের করেন। আসামী করা হয় আবুল কালাম হাওলাদারসহ অপর ৬ ভাই সোহেল রানা, মাহবুব আলম, ফুয়াদ, কাওসার, রাসেল ও মামুনকে। মঙ্গলবার ধার্য তারিখে অভিযুক্ত আবুল কালাম হাওলাদার গলাচিপা সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে হাজির হলে আদালতের বিচারক সান্তানু কুমার মন্ডল তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন। মামলার বাদী জসিম আকন বলেন, আমতলী ও গলাচিপা উপজেলার সীমান্তবর্তী গাজীপুর- গাবুয়া খেয়াঘাটের ইজারা এ বছর আবুল কালাম হাওলাদার না পাওয়ার জের ধরে তারা ৭ ভাই মিলে আমাকে ডেকে নিয়ে মাথায় ও মুখে আলকাতড়া (মেঠো তৈল) মেখে দিয়েছে।স্থাণীয় ইউপি সদস্য মোঃ শাহিন হাওলাদার বলেন, এলাকায় এমন কোন ন্যক্কারজনক কাজ নেই যে এরা ৭ ভাই না করে। বিদ্যুৎ দেয়ার নাম করে এলাকাবাসীর কাছ থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা চাঁদা উঠিয়েছে ওদের অপর ভাই সোহেল রানা। ওদের অপকর্মের বিরুদ্ধে কেহ কথা বললেই তাদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করে।

Print Friendly, PDF & Email
  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বরিশাল খবর ২৪ প্রকাশিত-প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।