,
প্রচ্ছদ | বরিশাল | অনলাইন সংবাদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | রাজনীতি | খেলাধুলা | সাহিত্য | এক্সক্লুসিভ | ফ্রেন্ডস ফর লাইফ সংবাদ | সিটিজেন জার্নালিস্ট সংবাদ | সম্পাদকীয় |

পটুয়াখালীতে এক মুক্তিযোদ্ধার রাস্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন না করার দাবী

  1. পটুয়াখালী প্রতিনিধি:
    চলমান মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া বিরোধপূর্ণ ব্যক্তি মালিকানাধীন
    দখলীয় জমিতে মসজিদ নির্মানের নামকরে সাইনবোর্ড টানানোর
    প্রতিবাদে সাংবাদিক সম্মেলন করেছে মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আঃ
    আজিজ মল্লিক।
    ১৮ এপ্রিল বৃহষ্পতিবার সকাল ১০টায় পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে
    আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এ অভিযোগ করেন
    মির্জাগঞ্জ উপজেলার সুবিধখালী ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান
    মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আঃ আজিজ মল্লিক। তিনি লিখিত প্রতিবাদ
    বক্তব্যে বলেন, আমি কলেজ পাঠ শেষ করে ১৯৬৬ সালে সেনাবাহিনীতে
    যোগদান করে পশ্চিম পাকিস্তানে প্রশিক্ষন নেই। যুদ্ধ অনিবার্যভেবে
    কৌশলে ১৯৭১ সনের ২২ ফেব্রæয়ারী ঢাকায় অবতরন করি। ২৬ মার্চের পরে
    শতাধিকজনকে সুবিধখালী র.ই. মাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে প্রশিক্ষন দেই।
    পাকবাহিনী পটুয়াখালী দখলে নিলে গা ঢাকা দিয়ে মুক্তিযুদ্ধে
    অংশগ্রহন করি। দেশ স্বাধীনের পরে অনেক কষ্টের মাঝে একটি ভাল
    দোকানের জন্য পূর্ব সুবিধখালী মৌজার ২২৮ নং দাগে জমি ক্রয় করি।
    ক্রয়কৃত জমিতে ঘর নির্মান করলে ২৭/৯১ বন্টন মোকদ্দমা চলাকালিন
    অবস্থায় র.ই. মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ ছাত্রদের দ্বারা ঘরটি ভেঙ্গে
    ফেলে। বন্টন মামলায় প্রথমবার রায়ে ২২.৫০ শতাংশ জমি প্রাপ্ত হয়ে
    দোকান ঘর ওয়াল দিয়ে নির্মান করি এবং পিছনে ৩ তলা একটি ভবন
    নির্মানে গ্রেড ভিমের উপড়ে ৬টি কলম নির্মিত হলে তৎসময়ের
    উপজেলা চেয়ারম্যান বাধা দিলে কাজ বন্ধ রাখি। স্কুল কর্তৃপক্ষ আপিল করলে
    পুনঃবিচারের জন্য মামলাটি নি¤œ আদালতে প্রেরন করে এবং
    দ্বিতীয়বার রায়ে ২৪.৫০ শতাংশ জমি প্রাপ্ত হইলে স্কুল কর্তৃপক্ষ সাথে
    সাথে ৪টি আপিল মোকদ্দমা দায়ের করে । স্কুল কর্তৃপক্ষ স্কুলের
    প্রাঙ্গনের বাহিরে নামমাত্র দলিল নিয়ে স্কুলের প্রাঙ্গনে থাকা টিনসেড
    মসজিদটি ১৯৬৯ সালে রেকর্ডীয় মালিক মন্নান খানের ঘর ভেঙ্গে
    স্থাপনা করে। পরবর্তীতে কুয়েতী সাহায্যে একটি বড় পাকা

মসজিদটি নির্মান করে। অদ্যবধি স্কুল বা মসজিদ কর্তৃপক্ষ ০১ শতাংশ
জমির রায় পায়নি এবং ভবিষ্যতেও পাবে না। কারন স্কুলের পূর্বের দলিল
গ্রহীতারাই জমি পায়নি।
সংবাদ সম্মেলনে মুক্তিযোদ্ধা আাজিজ মল্লিক বলেন, মডেল মসজিদ
নির্মানে ৪০ শতাংশ জমির প্রয়োজন হবে। স্থানীয় প্রশাসন ২২৮ দাগে
মডেল মসজিদ নির্মানের পায়তারা করছে। তিনি বলেন, ২২৮ নং দাগে
২.৮৮ একর জমি হতে দুই দফা একোয়ার বাদে কাগজে ৫৬ শতাংশ অবশিস্ট
থাকলেও সরজমিনে জমি আছে ৪২ শতাংশ। যাতে মসজিদ এবং ১৮টি
দোকান বিদ্যমান আছে। দরিদ্র দোকানদের স্বার্থ না দেখে ধর্মের
দোহাই দিয়ে দেড় হাজার ছাত্রের শক্তিবলে ঘর ভাঙ্গিয়া জায়গা পরিষ্কার
করে মডেল মসজিদ নির্মান করা হইলে সবার চেয়ে আমার বেশী ক্ষতি
হবে বলে সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন মুক্তিযোদ্ধা আঃ আজিজ
মল্লিক। ওই জায়গায় জোর করে মসজিদ নির্মান করলে আমি
মুক্তিযোদ্ধা, আমার ০১ শতাংশ জমিও থাকবে না, আমি পথের ভিখারী হয়ে
যাবো। সংবাদ সম্মেলনে দুঃখ করে আঃ আজিজ মল্লিক বলেন আমার
প্রায় দুই কোটি টাকা মূল্যের জমি জবর দখলে নিয়ে মডেল মসজিদ
নির্মানের নামে আমাকে সর্বশান্ত করতে চাইছে যে প্রশাসন, ও
সমাজ, সেই প্রশাসন ও সমাজ কর্তৃক আমার মৃত্যুর পরে আমাকে
রাস্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করবে, তা আমি চাই না। মুক্তিযোদ্ধা আঃ
আজিজ মল্লিক সরকারের কাছে কান্নাজড়িত কন্ঠে তার এবং তার
পরিবর্গের সম্মতিক্রমে নছিহত করে অনুরোধ করেন আমার মৃত্যুর পরে
আমাকে যেন রাস্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন করা না হয়।
মুক্তিযোদ্ধা আঃ আজিজ মল্লিক মির্জাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী
অফিসার, জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার ত্রয়ের কাছেও এ দাবীসহ উক্ত
অভিযোগ দাখিল করেছেন বলে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান তিনি ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রচ্ছদ | বরিশাল | অনলাইন সংবাদ | জাতীয় | আন্তর্জাতিক | রাজনীতি | খেলাধুলা | সাহিত্য | এক্সক্লুসিভ | ফ্রেন্ডস ফর লাইফ সংবাদ | সিটিজেন জার্নালিস্ট সংবাদ | সম্পাদকীয় |

উপদেষ্টা মন্ডলী

প্রধান উপদেষ্টা : শাহ্ সাজেদা ।
উপদেষ্টা সম্পাদক : সৈয়দ এহছান আলী রনি ।
সহকারী সম্পাদক: খন্দকার মুন্না ।
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক: এফ.এম. আসাদুজ্জামান (আসলাম) ।
বার্তা সম্পাদক : মোঃ নাজমুল হক ।
সম্পাদক ও প্রকাশক: মামুনুর রশীদ নোমানী ।

যোগাযোগ

সকল প্রকার যোগাযোগ: লুকাস কম্পাউন্ড,সদর রোড,বরিশাল ।

ইমেইল: nomanibsl@gmail.com

মোবাইল : 01839970603

ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপিংঃ ইঞ্জিনিয়ার বিডি নেটওয়ার্ক

Design & Developed BY EngineerBD