১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, সোমবার

শিরোনাম
গলাচিপা উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিনের বিরুদ্ধে নারী আইনজীবীকে পোটানো অভিযোগে শ্লীলতাহানী মামলা বাউফলে হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতার ও ন্যায় বিচার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন গলাচিপায় দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে দুটি দোকান পুড়ে ছাই, ২৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি গলাচিপায় আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল উপজেলা চেয়ারম্যান কর্তৃক নির্যাতিত নারী আইনজীবীর পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন কলাপাড়ায় কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদককে অভিনন্দন জানিয়েছে পটুয়াখালীতে সভাপতি প্রার্থী হৃদয় আশিষ মিথ্যা সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার প্রতিবাদে গলাচিপায় উপজেলা চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন গলাচিপা ও রাঙ্গাবালীতে নেই কোনো আবহাওয়া অফিস

উপজেলা চেয়ারম্যান কর্তৃক নির্যাতিত নারী আইনজীবীর পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন

আপডেট: সেপ্টেম্বর ১৩, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ
পটুয়াখালী জেলা গলাচিপা উপজেলায় ১২ সেপ্টেম্বর প্রকাশ্য দিবালোকে উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন শাহ্ কর্তৃক নারী আইনজীবী উম্মে আসমা আঁখিকে মারধর করে লাঞ্ছিত ঘটনার প্রতিবাদে ও বিচার দাবীতে পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলন করেছেন এ্যাডভোকেট আঁখি ও তার স্বজনরা।
গতকাল ১৩ সেপ্টেম্বর বিকাল ৪টায় পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে জনাকীর্ন সাংবাদিক সম্মেলনে উপজেলা চেয়ারম্যান শাহীন শাহ্ কর্তৃক নির্যাতিত নারী আইনজীবী আঁখি লিখিত বক্তব্যে পাঠকরে বলেন, তুচ্ছ ঘটনার জেরে বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিন শাহ্ মোবাইল ফোনে তার শ্বশুর গলাচিপা উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি কলাগাছিয়া ইউনিয়নের তিন তিনবার নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান দুলাল চৌধুরীকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাছ করে এবং তার হাত-পা ভেঙ্গে দেয়ার হুমকী দেয়। এর কিছুক্ষন পরে উপজেলা চত্বরে উপস্থিত এ্যাডভোটে আঁখিকে কোনকিছু না বলেই তাকে চর-থাপ্পর,কিল, ঘুষি এবং উপুর্যপরি লাথি মেরে মেরে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে এবং তাকে জনসম্মুখে বিবস্ত্র করার হুমকি দেয়।

এতে ভীত সন্ত্রস্থ হয়ে ইজ্জত রক্ষায় দ্রæত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নেয় এ্যাডভোকেট আঁখি।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ওই নারী আইনজীবীর শ্বশুর কলাগাছিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি আলহাজ্ব দুলাল চৌধুরী বলেন, আমি ১৫ বছর ধরে উপজেলা আওয়ামীলীগ কমিটির সহ-সভাপতি পদে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছি। সম্প্রতি কলাগাছিয়া লতিফ গংদের পুকুরে কে বা কারা বিষ দিয়ে মাছ মেরেছে। এ ঘটনায় আমাকে জড়িত করে মিথ্যাচার এবং গালিগালাছ এবং দেখিয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে আসছে দলীয় উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিন। এ ঘটনার জের ধরে উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিন শাহ আমাকে না পেয়ে আমার পুত্রবধূ এ্যাডভোকেট আঁখিকে প্রকাশ্যে শতাধিক মানুষের সামনে মারধর করে নির্যাতন করেছে। তিনি এ ঘটনা আওয়ামীলীগের হাই কমান্ডের কাছে বিচার দাবী করবো বলে আঁখির শ্বশুড় দুলাল চৌধুরী সাংবাদিকদের কাছে বলেন।

তিনি আরো বলেন বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যানের অত্যাচারে এলাকার মানুষ অতিষ্ঠ, ভয়ে কেউ মুখ খুলছে না। তার এ অনৈতিক কর্মকান্ডে দলের এবং সরকারের ইমেজ নষ্ট হচ্ছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। সংবাদ সম্মেলন আরো উপস্থিত ছিলেন আখিঁর বাবা মোঃ সিদ্দিকুর রহমান, শশুর গলাচিপা ৯নং কলাগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ দুলাল চৌধুরী ,স্বামী রাসেল চৌধুরী।
আইনজীবী আখি গলাচিপা থানায় মোঃ শাহিন শাহ ওরফে শাহিন প্যাদার বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ করেন বরে জানায়।
গলাচিপা ৯নং কলাগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ দুলাল চৌধুরী গলাচিপা থানায় মুঃ শাহীন শাহ (শাহীন প্যাদা) এর নামে সাধারন ডায়রী করে যার নং ৫১৭,তারিখ-১২.০৯.১৯ইং।
সংবাদ সম্মেলনে দুলাল চৌধূরী ও তার পরিবার উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিনের হয়রানী থেকে রেহাই পেতে কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।
উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিন শাহ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন-মাছ মারা নিয়ে একটু ঝামেলা হয়েছে আর কিছুই নয়।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network