১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, সোমবার

শিরোনাম
গলাচিপা উপজেলা চেয়ারম্যান শাহিনের বিরুদ্ধে নারী আইনজীবীকে পোটানো অভিযোগে শ্লীলতাহানী মামলা বাউফলে হত্যা মামলার আসামীদের গ্রেফতার ও ন্যায় বিচার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন গলাচিপায় দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে দুটি দোকান পুড়ে ছাই, ২৫ লক্ষ টাকার ক্ষতি গলাচিপায় আওয়ামী লীগের উদ্যোগে মানব বন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল উপজেলা চেয়ারম্যান কর্তৃক নির্যাতিত নারী আইনজীবীর পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন কলাপাড়ায় কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতার সংবাদ সম্মেলন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদককে অভিনন্দন জানিয়েছে পটুয়াখালীতে সভাপতি প্রার্থী হৃদয় আশিষ মিথ্যা সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার প্রতিবাদে গলাচিপায় উপজেলা চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন গলাচিপা ও রাঙ্গাবালীতে নেই কোনো আবহাওয়া অফিস

আলিয়া ভাটের স্বপ্ন পূরণ অনিশ্চিত

আপডেট: আগস্ট ২৬, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

বিনোদন ডেস্ক: আলিয়া ভাট ও সালমান খানসালমান খান আর আলিয়া ভাট প্রথমবারের মতো জুটি বেঁধে অভিনয় করবেন সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘ইনশাল্লাহ’ ছবিতে। আগামী বছর ঈদুল ফিতরে মুক্তি দেওয়ার লক্ষ্য নিয়ে তৈরি হবে ছবিটি। টুইট করে তা নিশ্চিত করে বানসালি প্রোডাকশন। কিন্তু আজ সোমবার দুপুরে এই টুইট বার্তায় প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছে, ‘বানসালি প্রোডাকশন সিদ্ধান্ত নিয়েছে, এই মুহূর্তে ‘“ইনশাল্লাহ” ছবির কাজ করবে না। শিগগিরই পরবর্তী সিদ্ধান্ত জানানো হবে।’

গত ১৯ মার্চ টুইটারে সালমান খান লিখেছেন, ‘সঞ্জয় লীলা বানসালি নতুন ছবি বানাচ্ছেন। ২০২০ সালের ঈদে দেখা হবে। আমার বিপরীতে থাকবেন আলিয়া। “ইনশাল্লাহ”, দারুণ কিছু হবে।’ সালমান খান তখন টুইটারে আরও লিখেছিলেন, ‘২০ বছর পার হয়েছে। অবশেষে সঞ্জয় লীলা বানসালি আমাকে আবার তাঁর ছবিতে নিয়েছেন। ছবির নাম “ইনশাল্লাহ”।’

কিন্তু এবার সালমান খান টুইটারে লিখেছেন, ‘সঞ্জয় লীলা বানসালি পিছিয়ে গেছেন, কিন্তু ২০২০ সালের ঈদে আপনাদের সঙ্গে অবশ্যই দেখা হবে।’

সালমান খান ও আলিয়া ভাট১৯৯৯ সালে সঞ্জয় লীলা বানসালির ‘হাম দিল দে চুকে সনম’ ছবিতে ছিলেন সালমান খান। এই ছবিতে আরও ছিলেন ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন ও অজয় দেবগন। ‘হাম দিল দে চুকে সনম’কে ভারতীয় চলচ্চিত্র ইতিহাসের অন্যতম আইকনিক ছবি হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

আলিয়া ভাট ‘ইনশাল্লাহ’ ছবির সঙ্গে যুক্ত হতে পেরে যারপরনাই খুশি হয়েছিলেন। বলিউডে পা রেখেই সঞ্জয় লীলা বানসালির ছবিতে অভিনয়ের ইচ্ছা পোষণ করেন। তাঁর সেই স্বপ্ন পূরণ হতে দেখে টুইটারে তিনি লিখেছেন, ‘তাঁরা আমাকে চোখ বড় বড় করে আর খোলা রেখে স্বপ্ন দেখতে বলেছিলেন। আমি তা-ই করেছিলাম। সঞ্জয় দত্ত এবং সালমান খান—দুজনে মিলে জাদুকরী কিছু করেন। আমি তাঁদের সেই যাত্রায় যোগ দেব, ভাবতেই দারুণ অনুভূতি হচ্ছে। “ইনশাল্লাহ” চমৎকার কিছু হবে।’

কিন্তু এখন এটা স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে, খুব তাড়াতাড়ি আলিয়া ভাটের এই স্বপ্ন পূরণ হওয়ার সম্ভাবনা নেই। কারণ ‘ইনশাল্লাহ’ ছবির কাজ কবে শুরু হবে, বানসালি প্রোডাকশন থেকে তা নিশ্চিত করা হয়নি।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network