২১শে আগস্ট, ২০১৯ ইং, বুধবার

পটুয়াখালীতে ডেঙ্গু প্রতিরোধে মাঠে নেমেছে জেলা পুলিশ

আপডেট: আগস্ট ৪, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

পটুয়াখালী প্রতিনিধিঃ “ডেঙ্গুকে আর নয় ভয়, প্রতিরোধে হবে জয়”, “নিজ আঙ্গিনা পরিস্কার রাখি, ডেঙ্গু হতে সুস্থ থাকি”, ‘পরিবেশ রাখি পরিস্কার, বন্ধ করি মশার বিস্তার’ প্রভৃতি শ্লোগান নিয়ে পটুয়াখালীতে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতা ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযানে মাঠে নেমেছে জেলা পুলিশ।
০৪ আগস্ট রবিবার বেলা ১১টায় পুলিশ লাইন্স ব্যারাক মাঠে ফগার মেশিন কাঁধে নিয়ে মশা নিধনের ঔষধ ছিটিয়ে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনতা ও ডেঙ্গু প্রতিরোধে পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযানের কার্যক্রম উদ্বোধন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসান (পিপিএম)। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মুহাম্মদ জসীম উদ্দিন, সদর থানার ওসি মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, ডিবি পুলিশের ইনচার্জ খন্দকার জাকির হোসেন, বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানসহ জেলা পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তা সদস্যবৃন্দ।

পরে ডেঙ্গু প্রতিরোধে সচেতনাবৃদ্ধির লক্ষ্যে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসান (পিপিএম) এর নেতৃত্বে পুলিশ লাইনস গেট হতে শহরে এক র‌্যালী বের করা হয়। র‌্যালীতে ডেঙ্গু প্রতিরোধে করনীয় বিষয়ক সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরন করা হয়।
প্রকাশ, গত ২১ জুলাই থেকে ৩ আগষ্ট পর্যন্ত পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে শিশু-নারী,চাকুরি জীবীসহ অন্তত ৪১ ডেঙ্গু রোগীকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়েছে। ৩ আগষ্ট হাসপাতালের কয়েকটি ওয়ার্ডে ২৩ রোগীর মধ্য ২১ জন পুরুষ, ১ জন নারী ও একজন শিশুকে চিকিৎসাধীন দেখা গেছে

এ রোগের নির্দিষ্ট কোন চিকিৎসা না থাকায় এটি সনাক্ত করার জন্য যে উপকরন ও যন্ত্রপাতি দরকার সে সকল সুবিধা সরকারী হাসপাতাল গুলোতে সহজলভ্য করার পাশাপাশি মশক নিধন এবং জনসচেতনতা তৈরির তাগিদ দিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ডেঙ্গুতে আক্রান্ত বাকি ১৮ জনকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে বলে হাসপাতালের তত্ত¡াবধায়ক ডাঃ মোঃ সাইদুজ্জামান জানান।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network