২২শে সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং, সোমবার

শিরোনাম

পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে রনগোপালদী ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব বাস্তবায়নে সদস্যদের সংবাদ সম্মেলন

আপডেট: জুলাই ১০, ২০১৯

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন

রানা, পটুয়াখালী ঃ পটুয়াখালী জেলার দশমিনা উপজেলার ০১নং রনগোপালদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ.টি.এম আসাদুল হক (নাসির সিকদার) এর বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাত ও জেলেদের ভিজিএফ চাল আত্মসাত এবং মহিলা সদস্যদের সাথে অসদাচরনের অভিযোগ করে পরিষদের ৯ জন সদস্য সভাসহকারে রেজুলেশন করে অনাস্থা প্রস্তাব বাস্তবায়নের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত।
১০জুলাই বুধবার দুপুর ১২টায় পটুয়াখালী প্রেসক্লাবে দশমিনা উপজেলার ০১নং রনগোপালদী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এ.টি.এম আসাদুল হক (নাসির সিকদার) এর বিরুদ্ধে অনিয়ম, দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাত ও জেলেদের ভিজিএফ চাল আত্মসাত এবং মহিলা সদস্যদের সাথে অসদাচরনের অভিযোগ করে পরিষদের ৯ জন সদস্য কর্তৃক অনাস্থা প্রস্তাব বাস্তবায়নের লক্ষ্যে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলন লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ২নং ওয়ার্ডের সদস্য মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন। লিখিত বক্তব্যে সদস্য মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন উক্ত চেয়ারম্যান এ.টি.এম আসাদুল হক পরিষদের কোন নিয়মনীতি অনুসরন না করে বিভিন্ন কার্যক্রমে অনিয়ম, দুর্নীতি, অর্থ আত্মসাত, জেলেদের ভিজিএফ চাল আত্মসাত এবং মহিলা সদস্যদের সাথে অসদাচরনের কারনে গত ২২.০৬.১৯ইং তারিখ সকাল ১০টায় ইউনিয়ন পরিষদ সভাকক্ষে পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম গাজীর সভাপতিত্বে ৬জন সদস্য ও দুই জন মহিলা সদস্যসহ ৯জন সদস্য সর্বসম্মতিক্রমে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় এবং তা রেজুলেশন করে ২৪ জুন দশমিনা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে ৯ জন সদস্য সশরীরে উপস্থিত হয়ে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাবপত্র দাখিল করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য দাবী জানানো হয়। যা জেলা প্রশাসক, বিভাগীয় কমিশনার, স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়ের সচিবসহ বিভিন্ন দপ্তরে প্রেরন করা হয়। কিন্তু এক পক্ষকাল অতিবাহিত হলেও উপজেলা নির্বাহী অফিসার অজ্ঞাত কারনে দুর্নীতিবাদ চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে আইনানুগ কোন ব্যবস্থা না নিয়ে অজ্ঞাত কারনে উক্ত চেয়ারম্যানকে সার্বিকভাবে সহযোগিতা করে আসছেন।
সংবাদ সম্মেলনে সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেন আরও বলেন, উক্ত চেয়ারম্যান, প্রান্তিক জেলেদের জন্য বরাদ্ধকৃত বিশেষ ভিজিএফ চাল দুঃস্থ ও প্রকৃত জেলেদের মাঝে সঠিকভাবে বিতরন না করায় ১০৪জন জেলে বিভিন্ন জায়গায় অভিযোগ করায় বিভিন্ন পত্রিকায় তা প্রকাশিত হয়েছে। জেলেদের পক্ষ থেকে পটুয়াখালী বিজ্ঞ সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে পিটিশন কেস নং-০২/২০১৯ আনায়ন করা হয়। পরিষদের মেম্বার/মহিলা মেম্বারদের সম্মানীভাতা ইউনিয়ন পরিষদের ট্যাক্স আদায়ের মাধ্যমে পরিশোধের কথা থাকলেও চেয়ারম্যান ট্যাক্স আদায় করে তিনি তার খেয়াল খুশিমত খরচ করেন এবং অদ্য পর্যন্ত মেম্বারদের সম্মানী ভাতা দেন নাই। চেয়ারম্যান কর্ম সৃজন (৪০ দিনের কর্মসূচী) কাজ বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে সিপিসি ইউপি সদস্য ও সদস্যাদের কাছ থেকে ১৫% হারে জোরপূর্বক উৎকোচ নেন। এছাড়া বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, স্বামী পরিত্যাক্তা ভাতা, প্রতিবন্ধী ভাতা, মাতৃত্বকালিন ভাতা প্রদানের ক্ষেত্রে জনপ্রতি ৩ হাজার টাকা করে আদায় করে আত্মসাত করে আসছেন। ভিজিডি কর্মসূচীর ক্ষেত্রে উপকারভোগী মহিলা নির্বাচন ভিজিডি চক্র ২০১৯-২০২০ মহিলা চ‚ড়ান্ত তালিকা প্রণয়নের ক্ষেত্রে অনিয়ম ও দুর্নীতির আশ্রয় নেয়। যার পরিপ্রেক্ষিতে মোকাম দশমিনা বিজ্ঞ সহকারী জজ আদালতে দেওয়ানী মোকদ্দমা নং-৪৩/২০১৯ মোকদ্দমা চলমান আছে।
এ সময় উপস্থিত ছিলেন প্যানেল চেয়ারম্যান মোঃ সেলিম গাজী, ১,২,৩ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বর মর্জিনা বেগম, ৭,৮,৯ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা মেম্বর মাহিনুর বেগম, ১নং ওয়ার্ডের মেম্বর মোঃ মনির হোসেন, ২নং ওয়ার্ডের মেম্বর মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন, ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বর মোঃ বাচ্চু মিয়া, ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বর মোঃ অলিউল ইসলাম রুবেল, ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বর মোঃ আফজাল মৃধা, ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বর মোঃ মফিজুল হক। আরও উপস্থিত ছিলেন রনগোপালদী ইউনিয়ন শাখা আওয়ামীলীগের সভাপতি আঃ আজিজ হাওলাদার ও সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন হাওলাদার প্রমুখ।

  • ফেইসবুক শেয়ার করুন
Website Design and Developed By Engineer BD Network